August 22, 2008

Animal And Human

পৃথিবীর বিভিন্ন এলাকায় পবিবেশের কারণে মানুষের সঙ্গে প্রণীর এক ধরনের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। অনেক সময় দেখা যায় এই সম্পর্ক মালিক ও প্রাণীর সম্পর্কের চেয়েও বন্ধুর্বপূর্ণ ও ঘনিষ্ঠ হয়ে থাকে।

  • এস্কিমো অঞ্চলে যারা বাস করে তাদের প্রিয় বন্ধু হলো শিকারি কুকুর। এস্কিমোরা যখন দূর দুরান্তে যাত্রা করে, তখন তাদের সাথে তাদের কুকুরগুলোকে নিয়ে যায়। শীতের দেশে এই কুকুরগুলো ঠিকে থাকে এবং তারা বিপদের মালিকএর পাশে এসে দাঁড়ায়।

  • কুকুর যে শুধু মেরু অঞ্চলের মানুষর প্রিয় তাই নয়, অনেক এলাকায় কুকুর মানুষের সবচেয়ে ভালো বন্ধু হিসেবেও পরিচিত। সুইজারল্যান্ডের অল্পস অঞ্চলে সেন্ট বার্নার্ড নামের এক ধরনের কুকুর রয়েছে যারা মানুষের সবচেয়ে ভালো বন্ধু। সেখানে বরফের মধ্যে কোনো মানুষ যদি বিপদে পড়ে, তাহলে এই কুকুরগুলো তাদের খুঁজে রের করে এবং তাদের শরীরে প্রয়োজনীওয় যা ধাঁধা থাকে তা দিয়ে সেই বিপদে পড়া মানুষটি বিপদমুক্ত হওয়ার জন্য কাজে লাগায়। এ কারণে এই কুকুরগুলোকে উদ্ধারকারী কুকুর হিসেবে দেখা হয়।

  • উট হলো মালিকের সবচেয়ে প্রিয় প্রাণী। মরুভুমির লোকেরা উটকে বন্ধুর মতোই ভালোবাসে। কারণ উট সেখানে জল ছাড়াই অনেকদিন বাঁচে। যার ফলে যে কোনো প্রয়োজনীয় যায়ায়াতে তারা উটকেই ব্যবহার করে।

  • জলে বাস করে ডলফিন মানুষএর অন্যতম প্রিয় বন্ধু হিসেবে পরিবিত। অনেক সময় ডলফিন পানিতে পড়ে যাওয়া মানুষকে বাঁচিয়েছে এ রকম অনেক উদাহরণ আছে।

  • মানুষের সঙ্গে ঘোড়ার একটা ভালো বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। যার গলে অনেক সময় ঘোড়া তাদের মালিককে বাঁচানোর জন্য নিজের জীবন পর্যন্ত দিতে পারে।

  • ব্যাঙ ক্ষেতে পোকামাকড় মেরে মানুষের উপকার করে বলে তাকে কৃষকের বন্ধু বলা হয়।

  • বিড়াল ইদুর মেরে মানুষের উপকার করে তাই মানুষ ঘরের বন্ধু বিড়াল।

  • আর্ন্তজাতিক বন্ধুত্বের প্রতীক হয়েছে উইনি দ্যা পু নামে ভালুকটি। ১৯৯৭ সাল থেকে সে বন্ধু দিবসে ব্যান্ড এম্বাসেডর।

No comments:

Post a Comment