March 27, 2009

Hinduism 1

এই ধর্মটি একটি পুরোনো ধর্ম। এটার নিয়ম-নিষ্ঠা অন্য ধর্মের চেয়ে অনেক অন্যরকম। এই ধর্মটাকে বুঝানো হচ্ছে একটা ছোট কৌটায় এক সাগরের জল রাখা যেটা সম্ভব নয়। হিন্দু ধর্মটাকে একটা Asvahtha গাছের সাথে তুলনা দেখানো হয়। সেটার কারন হচ্ছে এই গাছের শিকরগুলো সবসময় বড় হচ্ছে যেমন হিন্দুধর্ম বড় হচ্ছে। এই শিকরগুলো হচ্ছে নিয়ম যেগুলো আগের দিনের মানুষরা তৈরী করে দিয়েছিলো। এগুলো ঋগ্বেদ আর্যদের থেকে এসেছে। এগুলো অনেক প্রকার বিদ্যালয় আছে যেগুলো ইতিহাসে উল্লেখ্য। গাছের কান্ডটা হচ্ছে ভগবান। এবং এটাকেই বলা হয় আত্মা।
সনাতন ধর্ম একটা ধর্ম নয় কিন্তু এটা একটা নিয়ম যেটা সবাই মেনে চলে এই পৃথিবীতে। এখানেই এই প্রমান দেয় যে জীবন এবং ধর্ম একসাথে থাকে এবং এগুলোকে ভিন্ন করতে পারবে না কেউ। ধর্ম আমরা সবজায়গাই পাই। ধর্মিয় গুরুরা মানুষদের এমন ভাবে চেষ্টা করে তাদের নিয়মে যেতে। কিন্তু এটা এক এক ব্যক্তি উপরে যে সে কিভাবে ভগবানকে দেখে। একএক জন একএক ভাবে ভগবানকে দেখে। তার স্বাধিনতা হারিয়ে যায় এই জন্য। এবং তার কাছে থেকে যায় এক নদী যেখানে সে অনেক প্রকার পথ দেখে কিন্তু জানে না কোনটা নিতে হবে।

এই ধর্মটা পরিবর্তনের মধ্যেই আছে। এটার কারন হচ্ছে শিক্ষিত, ঋষি, বিদ্যালয়, শিক্ষা এবং রাজাদের পরিবর্তন। সামাজিক, রাজনৈতিক, মেটারিয়াল এবং শিক্ষার সাথে ধর্মকে যুক্ত করতে অনেক প্রকার এই ধরনের মতবাদ হয়। তাদের এই জ্বালানো বাতি এখন পর্যন্ত মানুষকে দিক-নির্দেশনা করে। তাদের জ্ঞান এবং এবং পথ এখন পর্যন্ত আছে এই সব অন্যান্য মতবাদের মধ্যেও।

No comments:

Post a Comment