July 08, 2009

Yoono

Image representing Yoono as depicted in CrunchBaseImage via CrunchBase

এতদিন শুধু শুনতাম ফ্লকের চেয়ে আর কোনো ভালো সোসাল নেটওয়ার্কিং ব্রাউজার নেই। কিন্তু কিছুদিন আগ থেকে আমি ব্যবহার করতে শুরু করলাম Yoono। এটা দিয়ে প্রায় সবই ফ্লকের কাজ করা যায় এবং আরো কিছু একস্ট্রা ফিচারও আছে।

কি ফিচার নেই সেটা আগে বলে দেই:
  • সেটা হচ্ছে আপনি ব্লগ পোস্ট করতে পারবেন না এটা দিয়ে।
  • ফ্ল্যাস বেইসড, তাই আমার মনে হলো অনেক মেমরি টানে।
  • আপনার ইমেইলে প্রতিবার লগ-ইন করতে হয় (এটা অবশ্য অন্যান্য সার্ভিসগুলোর জন্য নয়)
  • মেমরিরা কারণে আমার মনে হয় একবার ফ্রিজ হয়ে গিয়েছিলো (শিওর না কারণ আমি বিবিসির খবরও শুনছিলাম আর সেখানে লিখছিলো স্ক্রিপ্ট এরর)
এবার বেনেফিট লিস্ট করা যাক:
  • ছোট সাইজ ফ্লকের তুলনায়
  • আপনাকে প্রতিবার টুইটার বা ফেইসবুকে লগ-ইন করতে হবে না। সেভ করে রাখবে আপনার তথ্য
  • প্রতি সার্চের জন্য ডিস্কোভারি লিংক আছে
  • ফেসবুকে বা ফ্লিকারে যদি কেউ ভিডিও/ছবি পোস্ট করে, আপনি lightbox হিসেবে দেখবে পারবেন পাতায় না গিয়েই
  • প্রচুর পরিমানে নটিফিকেশন
  • আপনার আর গুগল সার্চের প্রোয়োজন নেই। সেটা সাইডবারেই করতে পারবেন।
  • কোনো ওয়েবসাইটের ছবি/ভিডিও/লেখা শেয়ার করতে পারবেন নিজের বা সোসাল নেটওয়ার্কিং সাইটে
  • নিজের কম্পিউটারেও সেগুলোকে রেটিং দিয়ে রাখতে পারবেন
  • ইয়াহু মিউজিক বা এই ধরনের পপুলার সাইট থেকে গান শুনতে পারবেন পাতায় না গিয়েই (সাইডবারে)

আর অন্যান্যগুলো আমি ব্যবহার করি না বলে শুধু লিংকটাই দিলাম। কানেক্ট কিভাবে করবেন, সার্চিং-এর সুবিধা, শেয়ার করুন


Reblog this post [with Zemanta]

No comments:

Post a Comment